Super Life Hackখাওয়া-দাওয়া হেলথ 

আপনি কি জানেন? ৭ টি উপায়ে চা আপনার উপকার করছে?

আমাদের এই দক্ষিণ এশিয়ান অঞ্চলের দেশ গুলোতে চায়ের চাহিদা অনেক। অনেকে পছন্দ করেন গ্রীন টি, অনেকে করেন ব্ল্যাক টি। এক এক জনের চাহিদা এক এক রকম। চা এ এমন কিছু পদার্থ আছে যা অনেক ভাবে আপনাকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। শুধু তাই না নানা রকমের রোগ (যেমনঃ দাঁতের সমস্যা, ক্যান্সার, হৃদরোগ, ইমিউনিটি সিস্টেম) প্রতিরোধ করে এবং শরীর সুস্থ রাখে। তাই আসলে চা এর কি কি উপকারিতা আছে বা কি কি ভাবে উপকার করে তা জেনে নেয়া ভাল।

দাঁতের সমস্যা দূর করেঃ টি ট্রি ট্রেড হেলথ রিসার্চ এ্যাসোসিয়েশন এর একটি রিসার্চ অনুযায়ী ব্ল্যাক টি ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণ থেকে দাঁত ও মাড়ি কে রক্ষা করে। পাশাপাশি দাঁতের বিভিন্ন সমস্যা যেমন, ক্যাভিটি প্রবলেম, অপরিণত বয়সে দাঁত পরা, মাড়ি থেকে রক্ত পরা, ঠাণ্ডা বা গরম কিছু খেলে দাঁত শিরশির করা ইত্যাদি সমস্যা দূর হয়।

হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়ঃ  যারা সাধারণত ব্ল্যাক টি প্রতিনিয়ত পান করে থাকেন তাদের হৃদরোগ যেমন, স্ট্রোক, হার্টের ব্লক ইত্যাদির সমস্যা শতকরা ২০ভাগ কমে যায়। অনেক দেশে ডাক্তাররা হৃদরোগের রোগীদের ব্ল্যাক টি খাওয়ার পরামর্শ দেয় ঔষধ হিসেবে।

ডিএনএ ড্যামেজ প্রতিরোধঃ চায়ে এ্যান্টিওক্সিডেন্ট এলিমেন্ট থাকে যা ডিএনএ এর ফরম্যাশন ঠিক রাখতে সাহায্য করে। পাশাপাশি যেগুলো ভাইরাস ডিএনএ ড্যামেজ করে সেগুলো ধ্বংস করে।

ক্যান্সার প্রতিরোধ করেঃ  একটি রিসার্চে প্রমাণ হয়েছে যে, যে নারীরা নিয়মিত ব্ল্যাক টি পান করে থাকেন তাদের জরায়ু ক্যান্সারের সম্ভাবনা শতকরা ৩২ ভাগ কম থাকে। শুধু জরায়ু ক্যান্সার না যেকোনো ধরনের কান্সারের ঝুঁকিও ব্ল্যাক টি পান করলে কমে যায়।

হাড় মজবুত করেঃ যারা নিয়মিত ব্ল্যাক টি খেয়ে থাকেন তাদের হাড়ও মজবুত হয়। যার ফলে বিকলাঙ্গতার হার শতকরা ৭০ ভাগ কমে যায়।

 মানসিক চাপ কমায়ঃ প্রতিদিনের কাজের ফাঁকে দেখা যায় যে, অনেক মানসিক চাপের সৃষ্টি হয় যার কারণে পরবর্তীতে কাজে মন বসানো বা ঠাণ্ডা মাথায় কাজ করা হয়ে ওঠে না। ব্ল্যাক টি এ যে ক্যাফেইন থাকে সেই ক্যাফেইন মস্তিষ্কে সতেজ করে এবং ক্লান্তি দূর করে।

শরীরের প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়ঃ ব্ল্যাক টি তে ট্যানিন নামক একটি পদার্থ থাকে যেটি যকৃত, হৃদ, পাকস্থলীর রোগ প্রতিরোধ করে এবং শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

এছাড়াও শরীরের শক্তি যোগান দেয়া, মানসিক চাপ কমিয়ে সতেজ অনুভব করার মত কাজও ব্ল্যাক টি করে থাকে। তাই প্রতিদিন অন্তত এক কাপ হলেও ব্ল্যাক টি বা গ্রীন টি পান করা স্বাস্থ্যের পক্ষে উপকারি।

Comments

comments

Related posts